গানই আমার প্রাণ: মমতাজ


গানকে তিনি ভালোবেসেছেন। গানের সঙ্গে পরাণ বেঁধেছেন। গান গেয়ে হয়েছেন মাটি ও মানুষের শিল্পী। পেয়েছেন লোকসম্রাজ্ঞীর খেতাব। হয়েছেন সংসদ সদস্য (মানিকগঞ্জ ২)। এককথায়, গান তাকে দু’হাত ভরে দিয়েছে। বলছি, সর্বাধিক অ্যালবাম ও জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী মমতাজ বেগমের কথা।

বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে গেজেট আকারে ২০১৭ ও ২০১৮ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়।

এর মধ্যে হাসিবুর রেজা কল্লোল পরিচালিত ২০১৭ সালের মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা ‘সত্তা’র জন্য সেরা সংগীতশিল্পী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে নির্বাচিত হয়েছেন মমতাজ। সেজুল হোসেনের কথায় বাপ্পা মজুমদারের সুরে ‘না জানি কোন অপরাধে’  গানের জন্য তিনি এই পুরস্কার জিতলেন।

পুরস্কার পাওয়া প্রসঙ্গে মমতাজ বাংলানিউজকে বলেন, ‘নিঃসন্দেহে এটি চমৎকার একটি গান। ব্যক্তিগতভাবে আমার অনেক পছন্দের। গানটি আমি বিভিন্ন অনুষ্ঠানেও গাই। গানটি গাওয়ার সময়ই বুঝতে পারি, এটি শ্রোতারা গ্রহণ করবেন। প্রত্যাশার সঙ্গে প্রাপ্তির সমন্বয় ঘটলো, তাই ভালো লাগছে।’

আরও একটি পছন্দের গান হচ্ছে ‘ফিরবো না আর বাড়ি’। অনিমেষ আইচের ‘ভয়ংকর সুন্দর’ সিনেমায় গেয়েছিলাম। আসিফ ইকবালের কথায় প্রিন্স মাহমুদের সুরে গানটির সংগীতায়োজন করেন মীর মাসুম। সত্যি কথা বলতে, আমি এই গানটি নিয়ে খুব বেশি প্রত্যাশী ছিলাম। যাই হোক, একটিতে পুরস্কার পেয়েছি তো- এতেই আমি খুশি। আমার ভক্ত-অনুরাগী এবং শ্রোতাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা।’’

মমতাজ আরও বলেন, ‘ভালো কাজের স্বীকৃতিগুলো প্রত্যেক শিল্পীকে অনেক বেশি অনুপ্রাণিত করে। আরও ভালো কাজের জন্য তাড়িত করে। ভালো কাজের ধারাটা অব্যাহত রাখতে চাই।’

কথা বলতে বলতে খানিকটা আবেগী কণ্ঠে এক নিঃশ্বাসে মমতাজ বলেন, ‘এক জীবনে গান আমাকে অনেক দিয়েছে। গানের জন্যই আমি আজকের মমতাজ। এককথায়, আমার ভেতরেও গান, বাইরেও গান, গানই আমার প্রাণ।’

এর আগেও মাসুদ পথিকের ‘নেক্কাবরের মহাপ্রয়াণ’ শীর্ষক সিনেমায় ‘নিশিপক্ষী’ গানের জন্য প্রথমবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জেতেন মমতাজ। মাসুদ পথিকের কথায় গানটির সুর করেন সংগীতশিল্পী বেলাল খান। এবার নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো এই পুরস্কার জিতলেন লোকসম্রাজ্ঞী।

এদিকে, শুক্রবার (৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় নরসিংদী জেলা শহরের আব্দুল কাদির মোল্লা সিটি কলেজের একটি কনসার্টে গান করতে যাচ্ছেন মমতাজ।

0Shares