চট্টগ্রাম বন্দরে কন্টেইনার জট: সরিয়ে নিতে স্টেকহোল্ডারদের চিঠি


করোনাভাইরাসের মহামারির কারণে সরকার ঘোষিত সপ্তাহব্যাপী লকডাউনে চট্টগ্রাম বন্দরের অভ্যন্তরে কনটেইনার জট বাঁধছে। প্রতিনিয়ত বন্দর থেকে পণ্য খালাসের হার সাধারণ দিনের তুলনায় কমেছে। তবে বন্দরের অভ্যন্তরে থাকা কনটেইনারের সাথে নতুন আমদানি পণ্যের কনটেইনার যুক্ত হয়ে যাতে বন্দরে অচলবস্থা সৃষ্টি না হয় এর আগাম প্রস্তুতি নিচ্ছে বন্দর কর্তৃপক্ষ। এ লক্ষ্যে বন্দরের অভ্যন্তরে থাকা কনটেইনার সরিয়ে নিতে সব স্টেকহোল্ডারদের তাগাদা দিয়ে চিঠি পাঠিয়েছে বন্দরের পরিবহন বিভাগ।

এ প্রসঙ্গে চট্টগ্রাম বন্দর সচিব ওমর ফারুক বলেন, চট্টগ্রাম বন্দরে উত্তরোত্তর কনটেইনার হ্যান্ডলিং বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে কন্টেইনারের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় স্থান সংকুলান হচ্ছে না। বন্দরের অপারেশনাল কাজে গতি আনতে বন্দরের অভ্যন্তরে থাকা কন্টেইনারগুলো জরুরী ভিত্তিতে সরিয়ে নেয়া প্রয়োজন।

তিনি বলেন, বন্দরের অপারেশনাল কার্যক্রমের গতিশীলতা বৃদ্ধির লক্ষে জাহাজ থেকে কনটেইনার নামার ৪ দিন ফ্রি টাইমের মধ্যে এবং একই বি/এল এর অন্তর্ভুক্ত সকল কনটেইনার একই সাথে যাতে ডিপোতে নেয়া যায় সে বিষয়টিও নিশ্চিত করতে হবে। এজন্য বন্দর স্টেকহোল্ডারদের চিঠি দেওয়া হয়েছে। কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে বন্দরের ভেসেল অপারেশন, ইয়ার্ড অপারেশনসহ আমদানী কন্টেইনার অপারেশন সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য স্টেকহোল্ডারদের চিঠি প্রাপ্তির ৩ দিনের মধ্যে বিশেষ উদ্যোগে পণ্য বোঝাই ও খালি কনটেইনার স্থানান্তর করার জন্য বলা হয়েছে।

জানা গেছে, প্রায় ৪৯ হাজার টিইইউস ধারণ ক্ষমতার চট্টগ্রাম বন্দরে গত শনিবার পর্যন্ত রয়েছে ৩৪ হাজার টিইইউসের বেশি কনটেইনার। এরই মধ্যে এমতাবস্থায় বেসরকারি কনটেইনার ডিপোতে যাওয়ার জন্য গত শনিবার পর্যন্ত চট্টগ্রাম বন্দরের অভ্যন্তরে আমদানি পণ্যবাহি কনটেইনার রয়েছিল ১ হাজার ৩৬৩ টিইইউস। এছাড়াও বন্দরের অভ্যন্তরে বেসরকারি অফডকগুলোতে যাওয়ার উপযোগি খালি কনটেইনার পরে আছে ১ হাজার ৪৬৯ টিইইউস। অন্যদিকে জাহাজ থেকে বন্দরের অভ্যন্তরে নামার পাইপলাইনে আছে আরো ১ হাজার ৯২৭ টিইইউস কনটেইনার। এসব কনটেইনার ৪দিন ফ্রি টাইম পরবর্তি দ্রুত সময়ের মধ্যে সরিয়ে নিতে প্রতিটি অফডকসহ বেসরকারি কনটেইনার ডিপোর্টস এসোসিয়েশনকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি হিমায়িত রেফার কনটেইনার খালি করতেও ফ্রোজেন ফ্রুডস এসোসিয়েশনকে জানানো হয়েছে।

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফোকাস চট্টগ্রাম ডটকম

0Shares